ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস

ঘরে বসেই কাটতে পারবেন ট্রেনের টিকিট ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস দিয়ে। আপনারা কি চান অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট ক্রয় করতে?  এর জন্য আপনার মোবাইলে একটি ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস ডাউনলোড করে নিতে হবে। অ্যাপটির মাধ্যমে ঘণ্টায় ১৫ হাজার টিকিট কাটা যাবে। অর্থাৎ প্রতি মিনিটে ২৫০ টা টিকিট কাটা যাবে।

একই সঙ্গে একজন যাত্রী সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। মোট টিকিটের ৫০ শতাংশ ক্রয় করা যাবে মোবাইলের ম্যাসেজ বা অনলাইনের মাধ্যমে।

যেভাবে ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস এ একাউন্ট খুলবেন:

  1. প্রথমে আপনার মোবাইল থেকে প্লে স্টোর অ্যাপসটি ওপেন করুন এবং সার্চবারে লিখুন Rail Sheba.
  2. এরপর অ্যাপস টি আসলে ইনস্টল বাটনে ক্লিক করে ডাউনলোড সম্পূর্ণ করুন এবং ওপেন করুন।
  3. এরপর রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করে সম্পূর্ণ নাম, ইমেইল, ফোন নাম্বার, পাসওয়ার্ড, আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার অর্থাৎ এনআইডি নাম্বার, ঠিকানা এবং পোস্টাল কোড দিয়ে রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করুন।

[ এনআইডি কার্ড যদি আপনার না থাকে এক্ষেত্রে বার্থ সার্টিফিকেট এর নাম্বার প্রযোজ্য হবে। পাশাপাশি কোন নাম্বারে কোন ভেরিফিকেশন কোড আসলে তা রেজিস্টার করার সময় ব্যবহার করুন। ]

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস ব্যাবহার করে যেভাবে টিকিট ক্রয় করবেন:

  1. প্রথমে অ্যাপটি ওপেন করুন এবং Buy Ticket এ ক্লিক করে কোন জায়গা থেকে কোন জায়গায় যেতে চাচ্ছেন তা উল্লেখ করুন। পাশাপাশি ক্লাস এবং কয় তারিখে যেতে চাচ্ছেন তা উল্লেখ করে Search Trains এ ক্লিক করুন।
  2.  এরপর আপনার সামনে চলে আসবে টিকিট এবং এই মুহূর্তে যে ট্রেনগুলো অ্যাভেলেবেল রয়েছে।
  3.  এরপর আপনার পছন্দ অনুযায়ী ট্রেন এবং সিট পছন্দ করে Continue Purchase বাটনে ক্লিক করুন।
  4.  এরপর Proced বাটনে ক্লিক করে যে অনলাইন ব্যাংকিং গুলো ব্যবহার করে পেমেন্ট করতে চাচ্ছেন। তা সিলেক্ট করুন এবং Proced To Payment বাটনে ক্লিক করুন।
  5. সর্বশেষ যে অনলাইন ব্যাংকিং ব্যবহার করে পেমেন্ট করবেন তার ইনফরমেশন প্রোভাইড করুন এবং টিকিট সংগ্রহ করুন।

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপসে কতদিন আগে টিকিটট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস কাটা যায়:

অগ্রিম ট্রেনের টিকিট পূর্বে ১০ দিন আগে কাটা যেত কিন্তু ২০২১ সালের ৯ মার্চ বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেন।
সেখানে বলা হয়েছে এখন থেকে ৫ দিন আগে ট্রেনের টিকিট কাটা যাবে। অর্থ্যাৎ ১০ দিনের পরিবর্তনে ৫ দিন আগে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটা যাবে।
বাংলাদেশের সকল রেলওয়ে যাত্রীদের এবং সকল ট্রেনের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি প্রযোজ্য বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।
উদাহরণস্বরূপ: মনে করেন, আপনি যদি এই মাসের ৬ তারিখে ট্রেনে ভ্রমন করতে চান তাহলে ৫ দিন আগে অর্থ্যাৎ ১ তারিখে ট্রেনের আগাম টিকিট কাটতে পারবেন।
বিজ্ঞপ্তিতে  বলা হয়েছে, ৫ দিন আগে কাটা অগ্রিম টিকিট, যদি কোনো ব্যাক্তি ফেরত দিতে চাই তাহলে ৪৮ ঘন্টা আগে সার্ভিস চার্জ কর্তন করে টিকিট ফেরত নেওয়া হবে।
টিকিটের বিভিন্ন শ্রেণী এবং সিটি সার্ভিস চার্জ বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। এসি টিকিট সার্ভিস চার্জ বাবদ ৪০ টাকা, প্রথম শ্রেণী বাবদ ৩০ টাকা এবং অন্যান্য গুলোতে ২৫ টাকা চার্জ কর্তন করে টিকিট ফেরত দেওয়া হবে।

 অগ্রিম ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপসে সময় এবং তারিখ

বাংলাদেশ রেলওয়ে ঈদুল ফিতর বা ঈদুল আজহা সহ অন্যান্য উৎসবের বেশ কিছুদিন আগে থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট ছাড়ে। যাতে যাত্রীদের কষ্ট না হয়।
যারা অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটতে চাচ্ছেন তারা ৫ দিন আগে সকাল ৮ থেকে রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটতে পারবেন।
রাত ১২ থেকে সকাল ৭ টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত অনলাইন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটতে পারবেন না।

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস এর ডিজাইন এবং ইউজার ইন্টারফেস:

অ্যাপটির ডিজাইন খুবই সুন্দর। এর পেছনে ভূমিকা রেখেছে লাল এবং সবুজ কালার। আরো রয়েছে মিনিমাস্টিক ডিজাইন। সব মিলিয়ে অ্যাপসটি বেশ ইউজার ফ্রেন্ডলি অর্থাৎ যে কোন ব্যক্তি এই অ্যাপসটি নিঃসন্দেহে কোন প্রকারের ঝামেলা ছাড়া ব্যবহার করতে পারেন।

ট্রেনের টিকিট কাটার অ্যাপস এর রেটিং এবং রিভিউ:

রেটিং: 3.8/5★
রিভিউ: 2K+

By Jillu Miah

আমি জিল্লু মিয়া। আমি একজন ডিজিটাল মার্কেটার এবং এসিও বিশেষজ্ঞ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *